Updated on October 18th, 2020 at 8:40 am(BST)

ফ্রান্সে মহানবীর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনকারী শিক্ষককে গলাকেটে হত্যা

ফ্রান্সের উত্তর-পশ্চিম প্যারিসের সান্ত-অনোরিন নামক স্থানে স্থানীয় সময় শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) বিকেলে একজন ইতিহাসের শিক্ষককে গলাকেটে হত্যা করা হয়েছে। মূলত শ্রেণিকক্ষে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স: ) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন ও সেটা নিয়ে আলোচনা করার কারণেই তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারনা করছে পুলিশ। শিক্ষকের ওপর হামলাকরী ব্যক্তিকে পুলিশ ঘটনাস্থলেই গুলি করে হত্যা করেছে। খবর এএফপি, বিবিসি ও আল জাজিরার।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাঁক্রো সন্ধ্যায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সন্ত্রাস-বিরোধী প্রসিকিউটর এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছেন।

একজন পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, হামলাকারী বড় একটি ছুরি ও এয়ারসফট পিস্তল নিয়ে আসেন। ওই শিক্ষক যে স্কুলে শিক্ষকতা করেন সেটার সামনেই তার ওপর হামলা করেন। পুলিশ কাছাকাছি যাওয়ার আগেই ওই শিক্ষকের গলা কেটে ফেলেন হামলাকারী। এরপর পুলিশ সেখানে পৌঁছে হামলাকারীকে আত্মসমর্পন করতে বলে। হামলাকারী আত্মসমর্পন করতে অস্বীকৃতি জানালে ৬০০ মিটার দূর থেকে গুলি করে তাকে ঘটনাস্থলেই হত্যা করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে ১০ দিন আগে ওই শিক্ষক শ্রেণিকক্ষে মহানবীর ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুন দেখিয়েছিলেন। তার সম্পর্কে বেশ কিছু বিষয় নিয়ে বিতর্কও করেছিলেন। ওই ঘটনার পর থেকেই তিনি নানাধরনের হুমকি পেয়ে আসছিলেন।

ওই ঘটনার পর ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকরাও শিক্ষকের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলেন। তবে যে ব্যক্তি শিক্ষকের ওপর শুক্রবার হামলা করেছেন তিনি কোনো ছাত্র কিংবা অভিভাবক নন।

ধারনা করা হচ্ছে কোনো সন্ত্রাসী গ্রুপ এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে থাকতে পারে। আর হামলাকারীর সঙ্গে সন্ত্রাসী গ্রুপের যোগসাজোশ থাকতে পারে।

Total views 36

মূল প্রকাশকের সংবাদটি পড়তে এই লিংকে ক্লিক করুন Click Here.  উপরের সংবাদ এবং ছবিটি থেকে সংগ্রহীত এবং এই সংবাদটির মূল প্রকাশক কর্তিক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই সংবাদটি কোন প্রকার সংশোধন পরিবর্তন অথবা পরিবর্ধন ছাড়া অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে সংগৃহীত। প্রকাশক কর্তিক যে কোনো আপত্তি webbangladeshgroup@ gmail.com গ্রহণ করা হয়। এই সংবাদে প্রকাশিত সংবাদ, তথ্য বা মতবাদ এর সাথে ওয়েব বাংলাদেশ এর কোন সম্পর্ক নাই এবং কোন প্রকার দায় ভার গ্রহণ করে না।